Banglar Chokh | বাংলার চোখ

রাজশাহী গোদাগাড়িতে ফুটবল টুর্নামেন্টের সমাপনী ও  পুরস্কার বিতরণ

সোহরাব হোসেন সৌরভ,রাজশাহী থেকে

প্রকাশিত: ১৬:৫৩, ২৬ নভেম্বর ২০২২

আপডেট: ১৬:৫৫, ২৬ নভেম্বর ২০২২

রাজশাহী গোদাগাড়িতে ফুটবল টুর্নামেন্টের সমাপনী ও  পুরস্কার বিতরণ

নিজস্ব ছবি

রাজশাহীর গোদাগাড়ির দেওপাড়া ঈদুলপুর খেলার মাঠে হয়ে গেল পাঁচ দিন (২১-২৫ নভেম্বর) ব্যাপি সচেতন সোসাইটির আয়োজনে এডুকো বাংলাদেশ এর অর্থ সহযোগীতায় বার্ষিক ক্রীড়া ফুটবল প্রতিযোগীতা-২০২২। এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করেছে কান্তাপাশা, নরসিংগড় আর্দশ,শাহানাপাড়া,নিমঘুটু গ্রামের ছেলে ও মেয়ে উভয় খেলোয়াড় সমূহ আলাদা গ্রুপ ভেদে। অত্যন্ত মনোরম পরিবেশে টুর্নামেন্টটি সফল ভাবে গত শুক্রবার ২৫ নভেম্বর সমাপনী খেলা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত হয়। এ টুর্নামেন্টে সমাপনী দিনে ফাইনালে ছেলেদের গ্রুপে মুখোমুখি হয় কান্তপাশা ও নরসিংগড় আর্দশ গ্রাম এবং মেয়েদের গ্রুপে নিমঘুটু ও বাগনপাড়া গ্রাম দল। 
ছেলেদের গ্রুপে কান্তপাশা ও নরসিংড় আর্দশগ্রাম এর মাঝে ফাইনালে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে প্রথমার্ধ ১-০ গোলে এগিয়ে যায় । দ্বিতীয়র্ধ গোল শূণ্য থাকায় ১-০ ব্যবধানে কান্তপাশা টিম জয় লাভ করে। ঐই একই দিনে পরবর্তী খেলায় মেয়েদের গ্রুপে ফাইনালে নিমঘুটু ও বাগানপাড়া টিম মাঠে নামে। টুর্নামেন্টের প্রধান আকর্ষণ হওয়ায় ঈদুলপুর খেলার মাঠে উত্তেজনায় মাঠে ভরপুর উচ্ছসিত জনতার সমাগম হয়। দুই দলই অপ্রাণ চেষ্টা করেও গোল নামক সোনার হরিণের দেখা পায় না, অবশেষে গোল শুণ্য ম্যাচ  টাইব্রেকারে  গড়ায়। টাইব্রেকারে আরো নাটকীয়তায় মোঢ় নেয়। দুই দলই প্রথম ৫ সেটে ৩ টি করে সমান গোল কওে, পরবর্তীতে আরো ৩ সেটেও সমান সংখ্যক গোল হয়। অবশেষে শেষ সেটে নিমঘুটু গোল দিলেও গোল রক্ষক চতুরতায় বাগানপাড়া দলের সট ঠেকে দিয়ে নিমঘুটু জয় নিশ্চিত করে। টুর্নামেন্টে ছেলেদের মধ্যে সেরা খেলোয়াড় কান্তপাশা দলের যতন, মেয়ের মধ্যে সেরা খেলোয়াড় বাগানপাড়া দলের চাঁদনী নির্বাচিত হয়।
টুর্নামেন্টের সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিল প্রধান অতিথী নির্বাহী পরিচালক সচেতন সোসাইটির হাসিবুল ইসলাম,বিশেষ অতিথী গোদাগাড়ী  উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার সোহেল রানা, ৭নং দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেল, সচেতন সোসাইটির অ ও ণ প্রকল্প সমন্বয়কারী নজরুল ইসলাম।
অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন,৭নং দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দিন সোহেল। তিনি বলেন, মনোমুগ্ধ কর এই আয়োজন করার জন্য সচেতন সোসাইটি ও এডুকো বাংলাদেশকে ধন্যবাদ। এরকম প্রতিযোগীতা আরো বেশি বেশি করার মাধ্যমে তরুণ সমাজকে উদ্ধুদ্ধ করতে হবে। যেকোনো ধরনের সহযোগীতার প্রয়োজন হলে আমি সকল ধরনের ব্যবস্থার প্রতিশ্রুতি দিলাম এবং বিজয়ী দলকে আমার পক্ষ থেকে এক এক দলকে পাঁচ হাজার অর্থ আমার তরফ থেকে দেওয়ার ঘোষনা করলাম।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়